শুক্রবার রাত ১২:৩৫

২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

১৩ই রজব, ১৪৪২ হিজরি

১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ বসন্তকাল

শিবপুরে অনুদান ও খাদ্যসামগ্রীর দাবীতে পরিবহন শ্রমিকদের বিক্ষোভ

শিবপুর প্রতিনিধি: নরসিংদীর শিবপুরে অনুদান ও খাদ্যসামগ্রীর দাবীতে ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে শ্রমিক নেতাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছেন পরিবহণ শ্রমিকরা। রবিবার (২৬ এপ্রিল) সকালে করোনার লকডাউন উপেক্ষা করে শিবপুর বাসস্ট্যান্ডে এই বিক্ষোভ করেন শতশত শ্রমিক।
শ্রমিকরা জানান, করোনা সংকটে শিবপুরের প্রায় ৮ শত পরিবহণ শ্রমিক কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমিকদেরকে সরকারীভাবে নগদ ৮ হাজার ৪ শত টাকা অনুদান দেয়ার কথা বলে শ্রমিক নেতৃবৃন্দ তাদের কাছ থেকে জাতীয় পরিচয়পত্রের এবং শ্রমিক পরিচিতি কার্ডের ফটোকপি জমা নেয়। এই প্রেক্ষিতে অনুদান নেয়ার জন্য শ্রমিকদের আজ সকালে শিবপুর বাসস্ট্যান্ডে উপস্থিত থাকতে বলা হয়।
সময়মত শ্রমিকরা বাসস্ট্যান্ডে উপস্থিত হলে তাদেরকে ঘোষণাকৃত নগদ অনুদান না দিয়ে সরকার ঘোষিত ১০ টাকা কেজির চাল নিতে বলা হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন শ্রমিকরা। তারা ১০ টাকা কেজির চাল না নিয়ে শ্রমিক নেতাদের বিরুদ্ধে নানা শ্লোগান ও বিক্ষোভ শুরু করেন। এক পর্যায়ে সেখানে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে।
এসময় শফিকুল ইসলাম, মহিউদ্দিন, বিল্লাল প্রধানসহ একাধিক শ্রমিক উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, করোনায় আমরা এখন বেকার হয়ে পড়েছি। আমাদের ঘরে খাবার নেই। সরকারীভাবে নগদ ৮৪০০ টাকা করে দেওয়ার কথা বলে কাগজপত্র নিয়েছে। কিন্তু তা না দিয়ে আমাদেরকে ১০টাকা কেজি চাল কিনে নিতে বলা হচ্ছে। আমরা এই চাল নিব না।
তারা আরও জানান, আমাদের পার্শ্ববর্তী পাঁচদোনা ও মনোহরদীর পরিবহন শ্রমিকরা ৮৪০০ টাকা করে অনুদান পেয়েছে। আমাদেরকে দেয়া হচ্ছে না। তাছাড়া বিগত ৩০ বছর যাবৎ শ্রমিক ফান্ডে মৃতফান্ডসহ কয়েক প্রকারের চাঁদা দিয়ে আসছি। তাছাড়া শ্রমিক কল্যাণের নামে বিভিন্ন যানবাহন থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা চাঁদা আদায় করা হয়ে থাকে। কিন্তু এই টাকা শ্রমিকদের কল্যাণের নামে উত্তোলন করা হলেও শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় করা হয় না। শ্রমিক নেতারাই এসব টাকা ভাগ ভাটোয়ারা করে নিয়ে যায়।
এসময় ঘটনাস্থলে ওএমএস এর চাল বিতরণ করতে উপস্থিত শিবপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হারুনুর রশীদ খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ হুমায়ুন কবীর ও শিবপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান শ্রমিকদের দাবী বাস্তবায়ন করার আশ্বাস দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।
এ বিষয়ে শিবপুর শ্রমিক কল্যাণ কমিটির সাধারণ সম্পাদক সফর আলী ভূঞা জানান, যারা আন্দোলন করছেন, তারা শ্রমিক নয়। আমরা কার্ডধারী শ্রমিকদের দূর্ঘটনা ও মৃত্যু ঘটলে সহযোগিতা করে থাকি।
শিবপুর মডেল থানার ওসি মোল্লা আজিজুর রহমান বলেন, শ্রমিকদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির কারণে এই অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে। আমি তাদেরকে বুঝিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেছি।







© সকল স্বত্ব- সমাজ নিউজ -কর্তৃক সংরক্ষিত
২২ সেগুনবাগিচা, ৫ম তলা, ঢাকা- বাংলাদেশ। মোবাইল: ০১৭১১-৩২৪৬৬০, ০১৭১৩-৫১২৫৮২।
ই-মেইল: news@somajnews.com, ওয়েব: www.somajnews.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

ডিজাইন: একুশে