মঙ্গলবার সকাল ১০:৩৭

২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

৪ঠা সফর, ১৪৪২ হিজরি

৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ শরৎকাল

বাংলা নববর্ষ ‘উৎসবহীন’ আজ

বিশ্বব্যাপী করোনভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে শুধুমাত্র কিছু টেলিভিশন অনুষ্ঠান ছাড়া ঘরের বাইরে বিশেষ কোনো আয়োজন না রেখেই আজ মঙ্গলবার সারাদেশে উদযাপিত হবে বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন পহেলা বৈশাখ।

ডিজিটাল পদ্ধতিতে পহেলা বৈশাখ উদযাপন অনুষ্ঠান সরকারি ও বেসরকারি সব টেলিভিশনে একযোগে সম্প্রচার করা হবে বলে সোমবার জানিয়েছে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় আয়োজিত এ অনুষ্ঠান মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টা হতে প্রচার করা হবে বলে বার্তা সংস্থা ইউএনবির এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

এ বছর রমনা পার্কের বটমূলে বিশ্বকবি রাবীন্দ্রনাথের বিখ্যাত গান ‘এসো হে বৈশাখ এসো এসো’ গেয়ে বাংলা নববর্ষকে বরণ করে নেবেন না ছায়ানটের শিল্পীরা।

বাংলা নববর্ষকে বরণ করে নিতে প্রতিবছর ১৪ এপ্রিল বেশ জাঁকজমকভাবে পালন করা হয় বাঙালি জাতির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ।

কিন্তু এ বছর প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে বিশাল জনসমাগম এড়ানোর জন্য অনুষ্ঠানগুলো স্থগিত করা হয়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে চলমান দুর্যোগের সময়ে রমনার বটমূলে বাংলা নববর্ষ উদযাপন করা হবে না বলে ১ এপ্রিল জানিয়েছিল ছায়ানট।

প্রায় ছয় শতক আগে থেকেই পহেলা বৈশাখ উদযাপন বাঙ্গালি সংস্কৃতির এক অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে। গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারের ১৫৫৬ সালে মুঘল সম্রাট আকবর বাংলা পঞ্জিকা চালু করেছিলেন।

বর্তমানে বাংলাদেশের বেশিরভাগ অংশের অধীনে থাকা তৎকালীন ‘সুবাহ বাংলা’ অঞ্চলে ভূমি কর আদায়ের সময়কে সহজ করার জন্য তিনি এর প্রচলন করেন। পহেলা বৈশাখ সরকারি ছুটির দিন।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনটি উপলক্ষে পৃথক বাণী দিয়েছেন এবং দেশে-বিদেশে বসবাসরত সকল বাংলাদেশিকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

Comments are closed.







© সকল স্বত্ব- সমাজ নিউজ -কর্তৃক সংরক্ষিত
২২ সেগুনবাগিচা, ৫ম তলা, ঢাকা- বাংলাদেশ। মোবাইল: ০১৭১১-৩২৪৬৬০, ০১৭১৩-৫১২৫৮২।
ই-মেইল: news@somajnews.com, ওয়েব: www.somajnews.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

ডিজাইন: একুশে