মঙ্গলবার রাত ৩:৪৩

২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

৩০শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি

১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ শরৎকাল

ফরিদপুরে আ.লীগ নেতা বরকত চাল-অস্ত্র-মদসহ গ্রেপ্তার

ফরিদপুরে আওয়ামী লীগনেতা সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও তার ভাই ইমতিয়াজ হাসান রুবেল আগ্নেয়াস্ত্র, মাদক, টাকা ও বিপুল সরকারি চালসহ গ্রেপ্তার হয়েছেন।বরকত ফরিদপুর শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তার ভাই ইমতিয়াজ হাসান রুবেল ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি। তাদের সঙ্গে আরো সাতজনকে গ্রেপ্তারের কথা জানিয়েছে পুলিশ।

আজ সোমবার দুপুরে ফরিদপুরের পুলিশ কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত এক ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার আলিমুজ্জামান সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

পুলিশ সুপার জানান, গত ১৬ মে ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহার বাড়িতে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও মারপিটের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় গত রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে শহরের বদরপুর মোড় হতে প্রথমে বরকত, রুবেল ও বিপুলকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আগ্নেয়াস্ত্রসহ যা যা জব্দ করা হয়েছে- পাঁচটি পিস্তল ও ৯১ রাউন্ড গুলি, দুটি শর্টগান ও ১৮০টি কার্তুজ, ছয় বোতল বিদেশি মদ, ৬৫ পিস ইয়াবা, সরকারি এক হাজার ২৬০ বস্তা চাল, তিন হাজার মার্কিন ডলার, ৯৮ হাজার ভারতীয় রুপি ও বাংলাদেশি ২৯ লাখ টাকা।

ফরিদপুরে আওয়ামী লীগনেতা সাজ্জাদ হোসেন বরকত আগ্নেয়াস্ত্র, মাদক, টাকা ও বিপুল সরকারি চালসহ গ্রেপ্তার হয়েছেন।

গ্রেপ্তারকৃত অন্যরা হলেন- সহযোগী রেজাউল করিম বিপুল, আওয়ামী লীগনেত্রী ইয়াসমিন সুলতানা বন্যা মণ্ডল, ছাত্রলীগনেতা এনামুল ইসলাম জনি, অমিয় সরকার, বর্ধিত ১৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নারায়ণ চক্রবর্তী, সাবেক ৬ নম্বর ওয়ার্ডের পৌর কাউন্সিলর মাহফুজুর রহমান মামুন ও জাহিদ খান।

গ্রেপ্তার বরকত ও রুবেল সম্পর্কে আপন ভাই। তাদের গ্রেপ্তারের খবরে জেলায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

সাজ্জাদ হোসেন বরকত ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপের সভাপতি। বরকত গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। আর তার ভাই ইমতিয়াজ হাসান রুবেল ফরিদপুর থেকে প্রকাশিত দৈনিক ভোরের প্রত্যাশা নামক পত্রিকার সম্পাদক।

প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার আলিমুজ্জামান বলেন, ‘বরকত, রুবেলের কোমড় হতে গুলিভর্তি ম্যাগাজিনসহ সেভেন পয়েন্ট সিস্ক ফাইভ বোরের পিস্তল জব্দ করা হয়। এ ছাড়া বরকতের রেস্ট হাউস হতে বিদেশি মদ ও খাদ্য অধিদপ্তরের ১২০০ বস্তাভর্তি চাল এবং রুবেলের ড্রয়ার হতে ৬৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্য মতে অন্যদের গ্রেপ্তার করা হয়।’

পুলিশ সুপার আরো জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও সরকারি চাল গুদামজাত করার অপরাধে নিয়মিত মামলা হবে। তাদের বিরুদ্ধে টেন্ডারবাজি, ভূমি দখল, চাঁদাবাজিসহ আরো বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও ইমতিয়াজ হাসান রুবেলকে গ্রেপ্তারের খবরে তাদের বিচার ও শাস্তি দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল বের করে আওয়ামী লীগের একাংশ।

ফরিদপুরে প্রেসক্লাবের সামনে বেলা ১১টার দিকে অনুষ্ঠিত এ বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন ফরিদপুর কোতোয়ালি থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ বোস।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা মনিরুল হাসান মিঠু, কোতোয়ালি থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি খলিফা কামাল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম চৌধুরীসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।







© সকল স্বত্ব- সমাজ নিউজ -কর্তৃক সংরক্ষিত
২২ সেগুনবাগিচা, ৫ম তলা, ঢাকা- বাংলাদেশ।
ই-মেইল: news@somajnews.com, ওয়েব: www.somajnews.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

ডিজাইন: একুশে