রবিবার রাত ৪:৩১

২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

২৬শে জিলকদ, ১৪৪৩ হিজরি

১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ বর্ষাকাল

ভৈরবে করোনা নেগেটিভের পর হঠাৎ করে চারজনের করোনা পজিটিভ

ভৈরবে ৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এরমধ্যে দুইজন ফার্মেসির কর্মচারী এবং সবজি বিক্রেতা দুইজন।আক্রান্তে পর দুটি এলাকা প্রশাসন থেকে বুধবার সকালে লকডাউন করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে আসা রিপোর্টে তাদের ৪ জনের পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তারা হলেন, শহরের মিষ্টিপট্রি এলাকার আল মদীনা ফার্মেসির কর্মচারী সুব্রত দাস ও কলাপট্রি এলাকার শিকদার ফার্মেসির কর্মচারী সঞ্জীত কুমার।

এছাড়া শহরের মনামারা সেতু সংলগ্ন কাঁচা বাজারের সবজি বিক্রেতা উজ্জল ও মিলনেরও করোনা রিপোর্ট পজিটিভ।

ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে গত ১০ মে পাঠানো ২৫ জনের মধ্যে ৪ জনের পজিটিভ ও ২১ জনের নেগেটিভ রিপোর্ট আসে গতকাল মঙ্গলবার রাতে।

ভৈরবে এ পর্যন্ত ৫২ জন করোনায় আক্রান্ত হয় এবং বুধবার পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৪৩ জন। নতুন করে ৪ জন করোনায় আক্রান্ত হওয়াই মিষ্টি পট্রি ও মনামারা সবজি বাজার এলাকাটি বুধবার সকালে লকডাউন করে দেয় স্থানীয় প্রশাসন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডা. বুলবুল আহমেদ জানান, গত শুক্রবার থেকে সোমবার পর্যন্ত ভৈরবের সকল রিপোর্ট ছিল নেগেটিভ। কিন্ত হঠাৎ করে মঙ্গলবার আবার ৪ জনের পজিটিভ রিপোর্ট আসে। মানুষের অসতর্কতার কারণেই তারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

তিনি জানান, ভৈরবে এ পর্যন্ত ৫২ জন আক্রান্ত হলেও ৪৩ জন চিকিৎসায় সুস্থ হয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি লুবনা ফারজানা জানান, সাধারণ মানুষকে প্রচারের মাধ্যমে সাবধান ও সচেতন হতে বলা হচ্ছে। কিন্ত তারা কথা শুনছেন না। অসচেতনতার অভাবেই ৪ জন করোনায় আক্রান্ত হলো। দুটি এলাকা আজ লকডাউন করে দেয়া হয়। তিনি সবাইকে সচেতন ও সাবধান হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন।







© সকল স্বত্ব- সমাজ নিউজ -কর্তৃক সংরক্ষিত
২২ সেগুনবাগিচা, ৫ম তলা, ঢাকা- বাংলাদেশ।
ই-মেইল: news@somajnews.com, ওয়েব: www.somajnews.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

ডিজাইন: একুশে