সোমবার সন্ধ্যা ৬:৩৫

২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

৩রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ হেমন্তকাল

ইউনাইটেডের আইসোলেশন ইউনিট ঝুঁকিপূর্ণ ছিল: ফায়ার সার্ভিস

করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় ইউনাইটেড হাসপাতালের তৈরি করা আলাদা আইসোলেশন ইউনিট খুবই ঝুঁকিপূর্ণ ছিল বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস।

বৃহস্পতিবার (২৮ মে) দুপুরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক দেবাশীষ বর্ধন দায়সারা আইসোলেশন ইউনিট তৈরির বিষয়টি তুলে ধরেন।

এতো গুরুত্বপূর্ণ রোগীদের এভাবে রাখা যায় কী-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, যেহেতু তারা করোনা রোগী রাখার জন্য আলাদা আইসোলেশন করতে সরকারিভাবে নির্দেশনা পেয়েছেন। করার জন্যই করেছেন আরকি। এটা খুব ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। যে পাঁচজন মারা গেছেন তারা সানসেটের ঠিক নিচে ছিল। আর বাইরে একটা এক্সটেনশন আছে টিনশেডের।

‘অস্থায়ীভাবে তৈরি ওই ইউনিটের পার্টিশনগুলো পার্টেক্সজাতীয়, যা অতিদাহ্য। আগুন যখন লেগেছে তাৎক্ষণিকভাবে একসঙ্গে পুরোটায় লেগে গেছে। এ কারণে একটা রোগীও বের হতে পারেনি। তাছাড়া, করোনা রোগীর আশপাশে সাধারণত কেউ থাকেন না। ওখানে ওই ৫ জন রোগীই চিকিৎসাধীন ছিলেন। যখনই আগুন লেগছে তখন তারা আর বের হতে পারেনি।’

অগ্নিকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, হয়তো বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটতে পারে। বিষয়গুলো আমরা খতিয়ে দেখছি।

বুধবার রাত ৯টা ৫৫ মিনিটে ইউনাইটড হাসপাতালের জরুরী বিভাগের পাশে অস্থায়ী করোনা আইসোলেশন সেন্টারে আগুন লাগে। রাত ১০টা ২৫ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসলেও এ ঘটনায় এক নারীসহ পাঁচজন মারা যান।







© সকল স্বত্ব- সমাজ নিউজ -কর্তৃক সংরক্ষিত
২২ সেগুনবাগিচা, ৫ম তলা, ঢাকা- বাংলাদেশ।
ই-মেইল: news@somajnews.com, ওয়েব: www.somajnews.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

ডিজাইন: একুশে