সোমবার সন্ধ্যা ৬:৫৬

২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

৩রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ হেমন্তকাল

অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন অর্থহীনের সুমন

চিকিৎসার জন্য ব্যাংককে গিয়ে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন অর্থহীন ব্যান্ডের সুমন। এতে তার মুখের বিভিন্ন অংশ ফেটে ও থেতলে যায়।  দুর্ঘটনায়  তিনি চোয়াল ও কানে বেশ আঘাত পান।গেল ১৭ জুন শহরটির সুকুমভিতে তিনি এ দুর্ঘটনার শিকার হন। সুমন তখন রাস্তা পার হচ্ছিলেন। দুর্ঘটনার পরপরই স্থানীয়রা তাকে পাশের স্যামিতিভেজ সুকুমভিত হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে সুমনের শরীরে ১১ ঘণ্টার অস্ত্রোপচার হয়।

সুমন জানান,  চেকআপের জন্য তিনি ব্যাংককে গিয়েছিলেন। স্যামিতিভেজ হাসপাতালেই সেদিন তার ছোট একটা অস্ত্রোপচার হয়েছিল। অস্ত্রোপচার শেষে তিনি হোটেলে ফিরছিলেন। গলির ভেতর দিয়ে রাস্তা পার হবার সময় হঠাৎ একটি মাইক্রোবাস তাকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়।  এসময় তিনি সঙ্গে সঙ্গে অজ্ঞান হয়ে পড়েন। মাইক্রোবাসটি চালাচ্ছিলেন একজন মহিলা।  পরে স্থানীয়রা তাকে হাসপাতালে নিয়ে যান।  তখন তার এক পরিচিত  চিকিৎসক দুর্ঘটনার বিষয়টি জানতে পেরে হাসপাতালে ছুটে যান। চিকিৎসক  হাসপাতালে বিল পরিশোধ করে অস্ত্রোপচার করার কথা জানান। সেদিন টানা ১১ ঘণ্টা অস্ত্রোপচার হয় তার শরীরে।  তবে পূর্ব অসুস্থতার কারণে শরীরে তিনটি ধাতব পাত লাগানো থাকায় মেরুদণ্ডে তেমন ক্ষতি হয়নি।তিনি বলেন, শরীরের অবস্থা আগের চেয়ে উন্নতি হয়েছে।  পুরোপুরি সুস্থ হতে মাসখানিক সময় লাগতে পারে।সুমন মূলত ক্যানসারের রোগী।  ২০১২ সালের দিকে তার মেরুদণ্ডে প্রথম ক্যানসার হয়েছিল।  এরপর মস্তিষ্ক, গলা, পাকস্থলী আর কিডনিতেও ছড়িয়ে যায়।  সবশেষ পাকস্থলী মারাত্মক সংক্রমিত হওয়ায় চিকিৎসকরা সেটি শরীর থেকে বাদ দেন।







© সকল স্বত্ব- সমাজ নিউজ -কর্তৃক সংরক্ষিত
২২ সেগুনবাগিচা, ৫ম তলা, ঢাকা- বাংলাদেশ।
ই-মেইল: news@somajnews.com, ওয়েব: www.somajnews.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

ডিজাইন: একুশে